প্রাপ্তবয়স্ক মহিলা স্বেচ্ছায় ভিন ধর্মে বিয়ে করতে পারেন: কলকাতা হাইকোর্ট

নিউজ ডেস্ক: প্রাপ্তবয়স্ক মহিলার ইচ্ছে হলে ভিন ধর্মে বিয়ে করতে পারেন। শুধু তাই নয়, স্বেচ্ছায় ধর্মান্তরিতও হতে পারবেন। এর জন্য বাবা-মার হস্তক্ষেপ বরদাস্ত নয়। বুধবার এক মামলার শুনানিতে এমনটাই নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের। এদিন বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে এদিন নদিয়ার একটি মামলার শুনানি ছিল।

নদিয়ার তেহট্টের এক বাসিন্দা প্রথমে নিম্ন আদালতের দ্বারস্থ হন। তাঁর অভিযোগ ছিল, ১৯ বছরের মেয়েকে ফুঁসলিয়ে বিয়ে করেছে ভিন ধর্মের এক যুবক। ওই মামলায় জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ওই তরুণীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। ওই তরুণী বিচারকের কাছে জানান, তিনি স্বেচ্ছায় বিয়ে করেছেন। এরপরই অভিযোগকারী ওই ব্যক্তি হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের দ্বারস্থ হন।

বুধবার ছিল ওই মামলার শুনানি। এদিনই ডিভিশন বেঞ্চ স্পষ্ট করে দেয়, প্রাপ্ত বয়স্ক কোনও মহিলা স্বেচ্ছায় ভিন ধর্মে বিয়ে করতেই পারেন। ধর্মান্তরিতও হতে পারেন, কেউ তাতে বাধা দিতে পারেন না। এদিন বিচারপতি সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও অরিজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চ বলে দেয়, “যদি কোনও প্রাপ্তবয়স্ক মহিলা স্বেচ্ছায় ভিন ধর্মে বিয়ে করে ধর্মান্তরিত হন এবং বাবার বাড়িতে ফিরে যেতে না চান, কেউ তাঁর ব্যক্তিগত সিদ্ধান্তে হস্তক্ষেপ করতে পারবেন না।’

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles