ফের রাজ্যপাল-রাজ্য সংঘাত, অর্ডিন্যান্স জারি করা বিল নবান্নে ফেরত পাঠালেন রাজ্যপাল

নিউজ ডেস্ক: অর্ডিন্যান্স জারি করা দু’টি অর্থ বিল নবান্নে ফেরত পাঠালেন রাজ্যপাল। যার জেরে ফের রাজ্যপাল–রাজ্য সংঘাত থাকল জারি। ‘বিধানসভার অধিবেশন চললে কোনও অর্ডিন্যান্স আনা যায় না। পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা অনির্দিষ্টকালের জন্য মুলতুবি হয়ে রয়েছে। সেই কারণেই বিল দু’টি ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।’ এই যুক্তিই দিয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। বিধানসভা নির্বাচনের আগে এই ইস্যুটি বড়সড় আকার নিতে চলেছে বলেই মনে করা হচ্ছে।

জিএসটি পরিষদে বেশকিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র। সেগুলি নিয়ে ইতিমধ্যেই একটি অর্ডিন্যান্স জারি করেছে কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রক। তবে নিয়ম মেনে বিধানসভায় এই সংক্রান্ত আইন পাশ করাতে হবে প্রত্যেকটি রাজ্যকে। যেহেতু লোকসভার মতোই বর্তমানে বিধানসভার অধিবেশনও চলছে না, তাই অর্ডিন্যান্স জারি করতে চেয়েছিল অর্থ দফতর। সেই অর্ডিন্যান্স জারি করা অর্থ বিলে সম্মতি না দিয়ে আইনি পথ দেখিয়েছেন রাজ্যপাল।

দ্বিতীয় বিলটি রাজ্যের ঋণ গ্রহণের ক্ষমতা বৃদ্ধি সংক্রান্ত। বাজেট নিয়ন্ত্রণ আইন অনুযায়ী, রাজ্য বর্তমানে মোট অভ্যন্তরীণ উৎপাদনের ৩.৫ শতাংশ বাজার থেকে ঋণ নিতে পারে। কিন্তু করোনা মহামারির সময়ে কেন্দ্র তা বাড়িয়ে ৫ শতাংশ করে দিয়েছ। তবে রাজ্য বিধানসভায় আইন না পাশ করালে অতিরিক্ত ধার নিতে পারবে না। রাজ্যপালের যুক্তি, ‘‘সেপ্টেম্বর মাসের গোড়ায় একদিনের জন্য বিধানসভার বিশেষ অধিবেশন বসেছিল। তার পরই অনির্দিষ্টকালের জন্য বিধানসভা মুলতুবি করে দেওয়া হয়। সেই কারণেই বিল দু’টি ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।’’ তাঁর মতে, অধ্যক্ষ যদি বিধানসভা মুলতুবি করার অনুমোদন চান এবং রাজ্যপাল যদি তাতে সায় দেন, তা হলে তার পরে সরকার অর্ডিন্যান্স আনতে পারে। কিন্তু বিধানসভার অধ্যক্ষ তেমনটা করেননি।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles