শুভেন্দুকে চ্যালেঞ্জ, অধিকারী পরিবারতন্ত্রের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন : কল্যাণ

নিউজ ডেস্ক : আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে শুভেন্দু অধিকারীকে নন্দীগ্রাম থেকে ভোটে দাঁড়ানোর চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিল তৃণমূল। শনিবার সাংবাদিক বৈঠকে তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘ওই ৩০টা সিআইএসএফ আর কনভয় নিয়ে আপনি যেন ফের নন্দীগ্রামেই দাঁড়ান। সিটটা আবার বদল করবেন না।’’ শ্রীরামপুরের সাংসদ প্রশ্ন করেন, ‘‘অধিকারী পরিবারতন্ত্রের আদৌ কি কোনও বিশ্বাসযোগ্যতা আছে? প্রশ্ন তুলে দিলেন শুভেন্দু অধিকারী। ২০১৪ সালে লোকসভায় জিতে আবার ২০১৬-তে ফিরে আসেন শুধু মন্ত্রী হওয়ার জন্য। শুধু আপনার জন্য একটা উপনির্বাচন করতে হয়েছিল। কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছিল তাতে। শুভেন্দু বলছেন, দলটা একেবারে পচে গিয়েছে। তাহলে এতদিন আপনি ছিলেন কেন? ’’

শুভেন্দুকে নিশানা করে কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়ের তোপ, ‘‘আজ যে প্রণাম শুভেন্দু অমিত শাহকে করলেন, একই রকমভাবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও একদিন করেছিলেন। আপনাকে ৩-৩টে মন্ত্রিত্ব, ৪-৫টা জেলার পর্যবেক্ষক করা হয়েছিল। আর কী সম্মান দেবেন ? মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারটা দিয়ে দিতেন ? যে কোনও মিটিংয়েই মুখ্যমন্ত্রী শুভেন্দুকে খুঁজতেন, শুভেন্দু না এলে মিটিংই শুরু করতেন না। আদর্শের কথা আপনি কী বলবেন? মেদিনীপুরের মাটিতে, বিদ্যাসাগর ও ক্ষুদিরামের দেশে এরকম আদর্শহীন, বিশ্বাসঘাতক ! মানুষ ভাবতে পারে না। শুভেন্দু যেখানে যেখানে জেলার পর্যবেক্ষক ছিলেন, সেখানে সেখানে ভোট বেড়েছিল বিজেপির। এর থেকেই বোঝা যায় কত বড় চক্রান্ত করেছেন। ২০১৪ সাল থেকে অমিত শাহর সঙ্গে ওর যোগাযোগ ছিল।”

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles