Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

প্রয়াত মমতার দীর্ঘদিনের সঙ্গী, বাতিল তৃণমূলের সমস্ত কর্মসূচি

নিউজ ডেস্ক: সারাজীবন আড়ালেই থেকেছেন, এবার যেন সারাজীবনের জন্যই আড়ালে চলে গেলেন ‘মানিকদা’। তাঁর কাছেই থাকত মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কালীঘাটের অফিসের চাবি। থাকত মুখ্যমন্ত্রীর সব ধরনের খবর। কিন্তু কখনওই তিনি সেগুলি কোনও সাংবাদিকদের বলতেন না। অত্যন্ত বিশ্বস্ত্ব সঙ্গীর প্রয়ানে শোককাতর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

মানিক মজুমদার। যাঁকে পেরিয়ে মমতার সঙ্গে দেখা হত না। সম্প্রতি বেলেঘাটা আইডি হাসপাতালে তাঁকে ভর্তি করানো হয়েছিল। হাসপাতাল সূত্রে খবর, সাত-আটদিন আগে তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়। কোভিড টেস্ট করিয়ে জানা যায় মারণ ভাইরাস তাঁর শরীরে বাসা বেঁধেছে। এছাড়াও সেরিব্রাল ম্যালেরিয়া-সহ একাধিক রোগে আক্রান্ত ছিলেন তিনি।

এদিন ট্যুইটে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘চার দশক ধরে আমার অত্যন্ত কাছের সহকর্মী ছিলেন মানিক (দা) মজুমদার। তাঁকে হারানোর যন্ত্রণা অসীম। সর্বদা হাসি মুখে নিঃশব্দে কাজ করতেন তিনি। সেই হাসিমুখ আর কেউ দেখতে পাব না।’ মানিক মজুমদারের মৃত্যুর জেরে শনিবার তৃণমূলের সমস্ত কর্মসূচি বাতিল করা হয়েছে। এদিন বেলা ১২টা নাগাদ জেলাস্তরে বৈঠক ছিল, তাও বাতিল করা হয়েছে। এছাড়াও প্রতিটি দলীয় কার্যালয়ে পতাকা অর্ধনমিত রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কোনওদিনও দলের কোনও পদে ছিলেন না, কিন্তু তৃণমূল নেতা-কর্মীরা তাঁকে যথেষ্ঠ শ্রদ্ধা করতেন। সকলেরই এক কথা, ভালবাসার মানুষ ছিলেন মানিকদা।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles