লক্ষ্মীরতনকে সমর্থন বৈশালীর, বিধায়ককে গেরুয়া শিবিরে স্বাগত বিজেপির

নিউজ ডেস্ক: তৃণমূলের যাবতীয় পদ ও মমতার মন্ত্রিত্ব থেকে ইস্তফা দেওয়ার পরেই লক্ষ্মীরতন শুক্লাকে দলে স্বাগত জানাল বিজেপি। একইসঙ্গে লক্ষ্মীরতনের পদত্যাগ প্রসঙ্গ টেনে তৃণমূলকেও নিশানা বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের।

বিজেপির রাজ্য সভাপতির দাবি তৃণমূলের কোনও নীতি-আদর্শ না থাকার জন্যই দলের এই অবস্থ। বিজেপিকে আক্রমণ করতে গিয়ে তৃণমূল নিজেদের সদস্য হারিয়ে ফেলছে বলেও কটাক্ষ করেন দিলীপ। বিজেপির রাজ্য সভাপতির পাশাপাশি লক্ষ্মীরতনের প্রশংসা করেছেন শমীক ভট্টাচার্যও। প্রাক্তন ক্রিকেটারের ইস্তফাকে সামনে রেখে মঙ্গলবার নাম না করে মমতা-অভিষেককে আক্রমণ করেন বাবুল সুপ্রিয়। কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রীর দাবি, ভোটের আগে তৃণমূলে দিদি-পিকে-ভাইপো ছাড়া আর কেউ থাকবে না।

খেলার জগতে ফিরে যেতে চেয়ে ইস্তফা দিয়েছে লক্ষ্মীরতন। বিধায়কের মন্ত্রিত্ব ও দল থেকে পদত্যাগপত্রের প্রাপ্তিস্বীকার করে মঙ্গলবার এই বার্তা দিয়েছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু তারপরেও লক্ষ্মীরতনের ইস্তফা নিয়ে জল্পনা রয়েছে ঘাষফুলের অন্দরে। হাওড়ায় দলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের জেরেই তিনি ইস্তফা দিয়েছেন বলে দলের একাংশের মত। বিধায়ককে দলের কাজ করতে দেওয়া হচ্ছিল না বলে অভিযোগ তুলে কার্যত লক্ষ্মীর পাশেই দাঁড়িয়েছেন বৈশালী ডালমিয়াও। তৃণমূলের কিছু লোক দলের ক্ষতি করছে বলে তৃণমূলের বিরুদ্ধে তোপও দেগেছেন বালির বিধায়ক।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles