“রাজ্যবাসীকে ঠিক করতে হবে তাঁরা কোন পথ বেছে নেবেন,” খোলা চিঠি শুভেন্দুর

নিউজ ডেস্ক : রাজনৈতিক জীবনে নতুন অধ্যায় শুরু করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। দল বদলের আগে রাজ্যবাসী ও তৃণমূলের কর্মী-সমর্থকদের উদ্দেশে খোলা চিঠি লিখলেন তিনি। চিঠিতে লেখা, “রাজ্য এক কঠিন সঙ্কটের মুখে দাঁড়িয়ে। ২০২১-এ বিধানসভা নির্বাচন। তাই রাজ্যবাসীকেই ঠিক করতে হবে তাঁরা কোন পথ বেছে নেবেন।” তিনি আরও লিখেছেন, “রাজ্যবাসী বিশ্বাস করে সেবার সুযোগ দিয়েছেন সে জন্য আমি কৃতজ্ঞ।” ব্যক্তি স্বার্থের ঊর্ধ্বে উঠে রাজ্যবাসীর স্বার্থে নিজেকে নিয়োজিত করেছেন বলেও জানিয়েছেন শুভেন্দু। রাজনৈতিক জীবনে যা কিছু সিদ্ধান্ত সব কিছুই রাজ্যবাসীর জন্য। সব সময় তিনি উন্নত সমাজব্যবস্থা গড়ে তোলার চেষ্টা করে গিয়েছেন বলেও জানিয়েছেন সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া দাপুটে এই নেতা।
চিঠিতে নন্দীগ্রাম আন্দোলনের প্রসঙ্গ তুলে ধরেছেন শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর কথায়, “সরকারের স্থবিরতা বড় সমস্যা। পরিকাঠামো উন্নয়নের মধ্য দিয়েই এই সমস্যাটাকে দূর করা যেত। কিন্তু এই সরকারে তা হয়নি। এটা খুবই দুঃখজনক। আর সে কারণেই আমরা ব্যর্থ হচ্ছি। তৃণমূলের মধ্যে পচন ধরতে শুরু করেছে। যে তৃণমূলের জন্য আমরা কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে লড়াই করেছি।”
তিনি আরও বলেন, “রক্ত, ঘাম ঝরিয়ে যে দলকে আমরা গড়ে তুলেছি, সেই দলই এখন আমাদের আদর্শের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করছে। জনগণ দ্বারা নির্বাচিত দলই আজ সেই জনগণের রায়ের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে। এখন দেখা যাচ্ছে রাজ্য এবং দেশের উন্নয়নের বিষয়টিতে নজর না দিয়ে ব্যক্তি ও পরিবারতন্ত্রই একমাত্র মূল লক্ষ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে।”

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles