রাজ্যপালকে সরানোর দাবিতে রাষ্ট্রপতির কাছে স্মারকলিপি তৃণমূলের

নিউজ ডেস্ক: রাজ্যপালের বিরুদ্ধে মামলা করতে আগেই কলকাতা পুলিশকে ভাবনা-চিন্তা করতে বলেছিলেন তৃণমূল সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এবার সরাসরি রাজ্যপালকে সরানোর দাবিতে রাষ্ট্রপতির দ্বারস্থ হল তৃণমূল। বুধবার সাংবাদিক সম্মলনে তেমনটাই জানালেন তৃণমূলের আর এক সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়। স্বাভাবিকভাবেই তাঁর এই মন্তব্যে রাজ্য বনাম রাজ্যপাল সংঘাত নতুন মাত্রা স্পর্শ করল বুধবার।

সংবিধান মানছেন না রাজ্যপাল। পুলিশ-প্রশাসনের বিরুদ্ধে কথা বলছেন। সাংবিধানিক লক্ষ্মণরেখা ডিঙোচ্ছেন। মন্ত্রিসভার বিরুদ্ধে কথা বলছেন। দিল্লির শাহেনশাহদের এজেন্ডা পূরণ করছেন। এদিন তৃণমূল ভবনের সাংবাদিক সম্মলনে ঠিক এভাষাতেই রাজ্যপালের বিরুদ্ধে আঙুল তোলেন সাংসদ সুখেন্দুশেখর রায়। এরপরেই তিনি বলেন, ‘‘রাষ্ট্রপতির কাছে স্মারকলিপি দিয়েছি। স্পিকারের আচরণে প্রশ্ন তুলেছেন রাজ্যপাল। এটা বিধানসভার সার্বভৌমত্বর উপর আঘাত। পুলিশদের উনি ভয় দেখাচ্ছেন। বলছেন নির্বাচন সুষ্ঠু যাতে হয় দেখব, উনি কে? এরজন্য তো নির্বাচন কমিশন আছে।’’

রাজ্যপালের বিরুদ্ধে সংবিধান না মানার অভিযোগ তুললেও সুখেন্দুশেখর বলেছেন, ‘‘সংবিধানের ১৫৬ নম্বর ধারা অনুযায়ীই রাষ্ট্রপতির কাছে রাজ্যপালকে সরানোর দাবি জানিয়েছি।’’ রাজনৈতিক মহলের মতে, রাষ্ট্রপতির কাছে রাজ্যপালকে সরানোর দাবি বেশ বিরল। তবে তৃণমূলের আবেদনে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ আদৌও সাড়া দেন কি না, তা সময় বলবে।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles