এপ্রিলেই শেষ হবে রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন প্রক্রিয়া

নিউজ ডেস্ক: এপ্রিলেই রাজ্যবাসী পেয়ে যাবে নতুন সরকার। অন্তত তেমনটাই ইঙ্গিত দিলেন ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার সুদীপ জৈন। যাতে শান্তিপূর্ণ ভোট করানো যায়, সেই লক্ষ্যে সম্ভাব্য পদক্ষেপ করবে কমিশন। চলতি মাসের শেষের দিকেই রাজ্যে আসবে কমিশনের ফুল বেঞ্চ।

পশ্চিমবঙ্গ-সহ কেরল, অসম, তামিলনাডু ও পুদুচেরির নির্বাচন প্রক্রিয়া এপ্রিলের শেষ সপ্তাহের মধ্যে সম্পূর্ণ করতে চায় কমিশন। বুধবার শহরের একটি পাঁচতারা হোটেলে সমস্ত জেলার পুলিশ সুপার ও কমিশনারেট কর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করেন ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার। পরবর্তীতে তিনি জেলাশাসকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেন। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে প্রতি সপ্তাহে প্রশাসনিক কর্তাদের কমিশনে রিপোর্ট দিতে বলেছেন ডেপুটি নির্বাচন কমিশনার। কলকাতার পুলিশ সুপার অনুজ শর্মা ও অন্তত দু’টি জেলার পুলিশ সুপারকে উদ্দেশ্য করে সুদীপ জৈনের বার্তা, ‘এলাকা শান্তিপূর্ণ রাখা আপনাদের দায়িত্ব। তা কীভাবে রাখবেন আপনারাই ঠিক করবেন। কোনওরকম বিশৃঙ্খলা বরদাস্ত করা হবে না। কর্তব্যে গাফিলতি হচ্ছে মনে হলে শোকজ না করেই সরাসরি অপসারণের পথে হাঁটবে কমিশন।’

রাজ্য মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক অফিসের এক কর্তার কথায়, ‘স্বাভাবিকভাবেই বিগত নির্বাচনগুলোর থেকে এবারের নির্বাচনে সর্বোচ্চসংখ্যক বাহিনী নিয়োগ হবে। কমিশন এবার এমন একটি বাতাবরণ তৈরি করতে চাইছে যাতে নির্ভয়ে সকলে ভোট দিতে পারেন। স্পর্শকাতর এলাকা চিহ্নিতকরণের কাজ শেষ হলেই বাহিনীর সংখ্যাও নির্ধারিত হয়ে যাবে।’ তিনি বলেন, ‘গতবারের মতো এবারও যদি রাজ্যে সাত দফায় নির্বাচন হয়, সেক্ষেত্রে ফেব্রুয়ারিতেই নির্বাচন ঘোষণা হয়ে যাবে। তাই এখন থেকেই সম্ভাব্য সব রকম প্রস্তুতি শুরু করে দিতে বলা হয়েছে। অপরাধের সংখ্যা শূন্যতে নামিয়ে আনতে বলা হয়েছে। প্রশাসনের তরফে কোনওরকম ভুল যেন না হয় সেদিকে সতর্ক দৃষ্টি দিতে বলা হয়েছে।’

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles