করোনার নতুন স্ট্রেন বিদেশ ফেরত সকলকে করোনা পরীক্ষা

নিউজ ডেস্ক: ফের পুরনো বিধি চালু দিল্লি বিমানবন্দরে। বিদেশ থেকে ফিরলেই করা হবে করোনা পরীক্ষা। এমনকী পজিটিভ হলে রাখা হবে আইসোলেশনে। পাশাপাশি এই ব্যক্তির সঙ্গে থাকা সহযাত্রীদেরও পাঠানো হবে হোম কোয়ারান্টিনে। বিট্রেনে নতুন স্ট্রেন দেখা দেওয়ার পরই পুরনো বিধিনিষেধ মেনেই চলতে হবে বিদেশ ফেরত যাত্রীদের। কেন্দ্রের তরফে একটি নতুন বিধিনিষেধ তৈরি করা হয়েছে। যার নাম দেওয়া হয়েছে স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিওর (এসওপি)।

সেই নির্দেশিকা অনুযায়ী, ২৫ নভেম্বরের পর যারা বিট্রেন থেকে দেশে ফিরছেন তাদের ট্রাভেল হিস্ট্রি জমা দিতে হবে। করোনার এই নতুন স্ট্রেনের ফলে ব্রিটেনে আবারও নতুন করে আতঙ্কের সৃষ্টি হয়েছে। ফলে ইতিমধ্যেই করোনার নতুন স্ট্রেন দেশে চলে আসার সম্ভাবনা প্রবল। যদিও মঙ্গলবার কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, এখনও পর্যন্ত ভারতে নতুন ভ্যারিয়্যান্টের কোনও হদিস মেলেনি। সেপ্টেম্বর থেকে দেশের করোনার গ্রাফ কিছুটা হলেও নিম্নমুখী। শেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্তের সংখ্যা সাড় উনিশ হাজার । দৈনিক সংক্রমণের এই অঙ্ক গত ৬ মাসের মধ্যে সবচেয়ে কম। যেহেতু শীতের প্রভাবে করোনা সংক্রমন বেড়ে যাওয়ার সম্ভবনা আছে তাই কেন্দ্রের কাছে এখন বড় লক্ষ্য কোনভাবেই করোনাকে বাড়তে না দেওয়া।

তাই গোড়া থেকেই বিধিনিষেধের উপর জোর দিয়েছে কেন্দ্র। বিমানবন্দরেই আরটি-পিসিআর টেস্ট করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। সেই পরীক্ষার ফলাফলেই এর জন্য ব্রিটেন ফেরত ২০ জনের শরীরে করোনার উপস্থিতি মিলেছে। তাদের সংক্রমণের কারণ নতুন স্ট্রেন কি না, তা এখনো পর্যন্ত জানা যাইনি। তবে তাদের প্রত্যেককেই আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে। এর মধ্যে কলকাতার দু’জন ছিলেন। মঙ্গলবার নতুন করে যোগ হয়েছে দিল্লির পাঁচ ও আমেদাবাদের চার জন। বাকিরা তামিলনাড়ুর।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles