আইন বাতিল না হলে বৃহত্তর আন্দোলন, সপ্তম দফার বৈঠকের আগে হুঁশিয়ারি কৃষকদের

নিউজ ডেস্ক: আজ সোমবার বিজ্ঞান ভবনে কৃষকদের সঙ্গে কেন্দ্রের সপ্তম দফার বৈঠক। আন্দোলনের ৪০তম দিনে এখনও পর্যন্ত সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হতে চলেছে এটাই। আলোচনার ফলাফলের উপরই নির্ভর করবে কৃষকদের ভবিষ্যৎ পদক্ষেপ। তাঁদের হুঁশিয়ারি বৈঠক সফল না হলে, আন্দোলন আরও বৃহত্তর হবে। এমনকী, প্রজাতন্ত্র দিবসের দিনে রাজধানীর রাজপথে ট্রাক্টর প্যারেড বা কিষাণ প্যারেড কর্মসূচি পালন করবেন তাঁরা।

কয়েকদিন আগে ৩০ ডিসেম্বর কেন্দ্র-কৃষকদের বৈঠকে প্রথমবার অল্প হলেও বরফ গলার ইঙ্গিত দেখা গিয়েছিল। খোলামেলা পরিবেশে আলোচনার পর কৃষকদের আনা খাবারই খেয়ে দূরত্ব মেটানোর চেষ্টা করেছিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীরা। কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমর জানিয়েছিলেন, চারটির মধ্যে দু’টি বিষয়ে সহমত পোষণ করেছেন কৃষক নেতারা। বাকিগুলির জন্য বিশেষ কমিটি বা প্যানেল গড়ার প্রস্তাব দেওয়া হয় কেন্দ্রের তরফে। তবে নূন্যমত সহায়ক মূল্য বা এমএসপি নিয়ে তেমন কোনও আশ্বাস মেলেনি বলে দাবি কৃষকদের। বিষয়টি সরকার গঠিত প্যানেল দেখবে বলে জানানো হয়েছে সরকারের তরফে।

যদি সোমবারের বৈঠকে কেন্দ্র তিন কৃষি আইন প্রত্যাহার ও নূন্যতম সহায়ক মূল্য নিশ্চিত করার কথা না বললে চরম পথ ধরবেন কৃষকরা। ১৩ জানুয়ারি লোহরির দিনে কৃষি আইনের কাগজ পোড়ানোর কর্মসূচি রয়েছে কৃষকদের। ২৩ জানুয়ারি নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর জন্মদিনে কিষাণ দিবস পালন করা হবে এবং ২৬ জানুয়ারি ট্র্যাক্টর প্যারেড। একদিকে কনকনে ঠান্ডার মাঝে অঝোরে বৃষ্টি। অন্যদিকে কৃষক বিক্ষোভের আঁচ ক্রমশই বাড়ছে। সেই আঁচ স্তিমিত হবে না কি না, সেটা জানতেই গোটা দেশের নজর আজ ফের একবার দিল্লিতে।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles