দেশের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী হিসাবে আলিগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে যোগদান মোদীর, বললেন, ‘‘ভারতে ধর্মের কোনো বিভেদ নেই’’

নিউজ ডেস্ক : ”ধর্ম সমাজের একটি অংশ। তবে একমাত্র দিক নয়। এই দেশের উন্নতিতে কিছু অশুভ শক্তি বাধা দিচ্ছে। কিন্তু বরাবরই আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় আধুনিক মুসলিম সমাজ গঠনের কাজ করেছে। আমাদের সরকার তিন তালাক প্রথা বাতিল করে সেই আধুনিক মুসলিম সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছে। কেন্দ্রীয় সরকার মুসলিম মহিলাদের শিক্ষায় বিশেষ নজর দিয়েছে।” আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষের অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে মন্তব্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর।
দেশের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী হিসাবে আলিগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে যোগ দিলেন মোদী। এর আগে ১৯৬৪ সালে লাল বাহাদুর শাস্ত্রী আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় সমাবর্তন অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন। তারপর দেশের আর কোনও প্রধানমন্ত্রী আলিগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনও অনুষ্ঠানে যোগ দেননি। ৫৬ বছর পর দেশের দ্বিতীয় প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নরেন্দ্র মোদী আলিগড় বিশ্ববিদ্যালয়ের কোনও অনুষ্ঠানে যোগ দিলেন।
অনুষ্ঠানে যোগ গিয়ে সম্প্রীতির বার্তা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘‘দেশ এমন এক উন্নয়নের পথে এগোচ্ছে, যেখানে গরীব-মধ্যবিত্তদের জন্য সরকারের সমস্ত উন্নয়নমূলক প্রকল্প ধর্মীয় ভেদাভেদ ছাড়াই দেশের সকলের কাছে সমান ভাবে পৌঁছচ্ছে। আমরা এমন পথে এগোচ্ছি, যেখানে ধর্মের কারণে কাউকেই পিছনে রাখা হচ্ছে না এবং সবাই নিজেদের স্বপ্নপূরণের লক্ষ্যে এগিয়ে চলেছে।’’

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles