জেটলির মূর্তি স্থাপনে আপত্তি, সদস্যপদ ছাড়লেন বিষেণ সিংহ বেদী

নিউজ ডেস্ক: প্রথমে নাম পরিবর্তন, এবার দিল্লির কোটলার স্টেডিয়ামে বসানো হবে অরুণ জেটলির মূর্তি। তার প্রতিবাদ জানিয়ে দিল্লি অ্যান্ড ডিস্ট্রিক্ট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের সদস্যপদ ছাড়লেন বিষেণ সিংহ বেদী। প্রশাসকরা কি ক্রিকেটারদেরও আগে? এমনই অভিযোগ তুলে দিল্লি ক্রিকেট সংস্থার বিরুদ্ধে তোপ দাগলেন বিষেণ সিং বেদী। শুধু তাই নয়, কোটলা স্টেডিয়ামের স্ট্যান্ড থেকে তাঁর নাম সরিয়ে দেওয়ার জন্য আবেদন করেন তিনি।ডিডিসিএ-র প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট ও রাজনীতিক অরুণ জেটলি মারা গিয়েছেন গতবছর। তাঁর নামে আগেই নতুন নামকরণ করা হয়েছে ফিরোজ শাহ কোটলার। এ বার আবক্ষ মূর্তি বসছে জেটলির। যা নিয়ে ঘোর আপত্তি রয়েছে বেদীর। সেই সঙ্গে জেটলির ছেলে রোহন জেটলি এখন ডিডিসিএ-র প্রেসিডেন্ট। যা নিয়েও বিতর্ক তুলে দিয়েছেন তিনি। ডিডিসিএ-তে স্বজনপোষণের অভিযোগ এনেছেন ভারতের এই প্রাক্তন অধিনায়ক। তিনি বলেন ক্রিকেটারদের নয়, এখানে প্রাধান্য দেওয়া হয় প্রশাসকদের।

অরুণ জেটলির মূর্তি বসানোর পরিকল্পনার প্রেক্ষিতে বেদী বলেন, “আমার সহনশীলতা এবং ধৈর্য খুবই বেশি। কিন্তু ডিডিসিএ আমার সেই ধৈর্যের বাঁধ ভেঙে দিয়েছে। সত্যি কথা বলতে কী, ডিডিসিএ-ই আমাকে বাধ্য করল এই সিদ্ধান্তটা নিতে। যে কারণে এখনকার প্রেসিডেন্টকে জানাচ্ছি, স্ট্যান্ড থেকে যত দ্রুত আমার নাম মুছে ফেলা হোক। সেই সঙ্গে ডিডিসিএ সদস্যপদও ছাড়ছি।” পাশাপাশি রোহান জেটলিকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন ফিরোজ শাহ কোটলার মাঠের স্ট্যান্ড থেকে যেন সরিয়ে দেওয়া হয় বেদীর নাম। ২০১৭ সালে ভারতের কিংবদন্তি স্পিনারের নামে স্ট্যান্ডের উদ্বোধন করা হয়েছিল।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles