বক্সিং ডে টেস্টে চালকের আসনে ভারত, সিরাজ ও গিলের মেলবন্ধনে পড়ল সেরা উইকেট

নিউজ ডেস্ক: মেলবোর্নে প্রথম দিনের শেষে চালকের আসনে ভারত। ১৯৫ রােন অস্ট্রেলিয়াকে অল আউট করে দেওয়ার পর দিনের শেষে ভারত করে এক উইকেটে ৩৬ রান। অভিষেক ম্যাচে জোড়া উইকেট পকেটে পুড়েছে মহম্মদ সিরাজ। অন্যদিকে ২৮ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়লেন আরও এক তরুণ তুর্কি শুভমন গিল। একেবারেই বোঝা গেল না বিরাটের অভাব। এদিনের খেলায় উল্লেখযোগ্য বিষয়টি হল স্টিভ স্মিথের শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফেরা।

বক্সিং ডে টেস্টের টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক টিম পেইন। তবে ভারতীয় বোলিংয়ের সামনে দাঁড়াতেই পারলেন না অস্ট্রেলিয়ান ব্যাটসম্যানরা। মেলবোর্ন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে কার্যত জ্বলে উঠেছিলেন ভারতের অভিজ্ঞ পেসার জসপ্রীত বুমরাহ। তিনি একাই চারটে উইকেট শিকার করেন। আজ দিনের শুরুতে একটু হলেও উইকেটে আর্দ্রতা ছিল। সেটাকেই কাজে লাগিয়েছিলেন মুম্বইয়ের এই পেসার। ৪.২ ওভারে জসপ্রীত বুমরাহের বলে ঋষভ পন্থের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরে যান জো বার্নস। এদিন তিনিও ফিরলেন শূন্য রানে। এরপর ম্যাথিউ ওয়েডকে সঙ্গী করে দলের স্কোরবোর্ড সচল রাখেন মারনাস লাবুশেন। কিন্তু, অশ্বিনের ঘূর্ণিতে এই পার্টনারশিপ খুব একটা বেশিদূর এগোতে পারেনি। এই দুই ব্যাটসম্যানের মধ্যে ২৫ রানের পার্টনারশিপ গড়ে ওঠে। ১২.৫ ওভারে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের বলে রবীন্দ্র জাদেজার হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন ম্যাথু ওয়েড (৩০)। এরপর ভারতীয় বোলারদের হাতে আসে সবথেকে বড় উইকেটটা। ১৪.৩ ওভারে ফিরলেন স্টিভ স্মিথ। বাকি উইকেটগুলো তুলে নেওয়া ছিল শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা। এরপর একে একে ফিরে যান টিম পেইন (১৩), ক্যামেরন গ্রিন (১২), মিশেল স্টার্ক (৭), নাথান লিয়ন (২০) এবং প্যাট কামিন্স (৯)। ১৯৫ রানেই অলআউট হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং ব্রিগেড।

এদিন তিনটি উইকেট পেলেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। তবে আগের ম্যাচের বড় রানের কারিগর লাবুশেনকে ৪৮ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরিয়ে আসল মোর দেন সিরাজ। এই উইকেটটা ভারতের কাছে যে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, তা নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই। ডানদিকে ডাইভ মেরে ব্যাকওয়ার্ড স্কোয়ার লেগে অসাধারণ একটা লো ক্যাচ নিলেন গিল। ১৯৫ রানেই অলআউট হয়ে যায় অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটিং ব্রিগেড। এরপর ব্যাট করতে নেমে প্রথমেই মায়াঙ্ক আগরওয়াল ফিরে যান শূন্য রানে। তবে ব্যাটিং লাইনের স্টিয়ারিং ধরে নেন শুভমন গিল। তার সঙ্গে ৭ রানে অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়লেন চেতেশ্বর পূজারা।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles