এবিভিপি–টিএমসিপি সংঘর্ষে ধুন্ধুমার বাজকুল কলেজ, উত্তপ্ত কলেজ চত্বর

নিউজ ডেস্ক: দলীয় পতাকা লাগানোকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার পূর্ব মেদিনীপুরের বাজকুল কলেজ। এবিভিপি–টিএমসিপির মধ্যে সংঘর্ষে উত্তেজিত হয়ে উঠল এলাকা চত্বর। কলেজের বাইরে থাকা বেশ কয়েকটি মোটর বাইকে আগুন  লাগিয়ে দেওয়া ও বোমাবাজির ঘটনা ঘটে। বিজেপি–র ছাত্র সংগঠন অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদের (‌এবিভিপি)‌ অভিযোগ, সোমবার সকালে বাজকুল কলেজের গেটে পতাকা লাগানোর সময় ‌তাদের সমর্থকদের বাধা দেয় তৃণমূল ছাত্র পরিষদের (‌‌টিএমসিপি)‌ কর্মী–সমর্থকরা। অভিযোগ, তারা প্রতিবাদ করলে ছাত্রদের বাইকে আগুন লাগিয়ে দেয় টিএমসিপি। এবিভিপি–র দাবি, এই গন্ডগোলের পেছনে রয়েছেন তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতা রবীন মণ্ডল।

এদিকে, এই ঘটনায় এবিভিপিকে দায়ী করেছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ। তাঁদের অভিযোগ, এদিন ইচ্ছে করেই কলেজের গেটের সামনে গন্ডগোল বাধায় এবিভিপি–র সমর্থকরা। তাদের বোঝাতে এলে সংঘর্ষ আরও বেধে যায় বলে দাবি তৃণমূল ছাত্র পরিষদের। জানা গিয়েছে, এই ঘটনায় দু’‌পক্ষের পাঁচ থেকে ছয় জন জখম হয়েছেন। ঘটনার প্রতিবাদে রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ।

রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পূর্ব মেদিনীপুরের বাজকুল কলেজে এতটা সক্রিয় ছিল না এবিভিপি। কিন্তু শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরই প্রবলভাবে সক্রিয় হয়েছে বিজেপি ছাত্র সংগঠন। আর তারপর থেকেই শুরু দখল নেওয়ার লড়াই।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles