ফের পণের দাবিতে গায়ে কেরোসিন পুত্রবধূর, অভিযোগ তৃণমূল বিধায়কের পরিবারের বিরুদ্ধে

নিউজ ডেস্ক: ফের পণের দাবিতে পুত্রবধূর গায়ে কেরোসিন ঢেলে দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূল বিধায়কের পরিবারের বিরুদ্ধে। ২০১৯ এর ১৩ মার্চ জলপাইগুড়ির ময়নাগুড়ি ব্লকের উল্লাডাবরি ডাঙাপাড়া গ্রামের বাসিন্দা বলিদেব রায়ের মেয়ে পিঙ্কির সঙ্গে বিয়ে হয় জলপাইগুড়ির রাজগঞ্জের বিধায়ক খগেশ্বর রায়ের ছেলে দিবাকরের। দেখাশোনা করেই বিয়ে হয় দুজনের। নিগৃহীতা পিঙ্কির পরিবারের দাবি, বিয়ের সময় দাবিমতো পাঁচ ভরি সোনা, দুই লক্ষ টাকা, আসবাবপত্র দেওয়া হয়েছিল। অভিযোগ, বিয়ের কিছুদিন পর থেকে ফের পণের দাবিতে পিঙ্কির ওপর অত্যাচার চালাতে থাকে দিবাকরের পরিবার। এমনকী তাঁকে প্রায়শই নির্যাতিতার স্বামী মদ্যপ অবস্থায় মারধর করতেন বলেও অভিযোগ করেন পিঙ্কির পরিবার। অভিযোগ, ২৭ অগস্ট ২০২০ নিগৃহীতার গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে দেন তাঁর শাশুড়ি। তবে শাশুড়ি দেশলাই আনতে গেলে কোনওক্রমে পালিয়ে বাঁচেন তিনি। এরপর বাপের বাড়ি চলে যান নিগৃহীতা। কয়েকবার থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ জানানোর চেষ্টা করেন। কিন্তু অভিযোগ, খগেশ্বর রায় রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে তাঁর পিছনে লোক লাগিয়ে দিতেন। বাধ্য হয়ে তিনি কোনও কিছুই করেতে পারেননি তিনি।

পিঙ্কির দাবি, কিছু মানুষের সাহায্য নিয়ে তিনি থানায় গিয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন  দিবাকর ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে। তবে পুলিশ অভিযোগ নিলেও তার কোনও রিসিভ কপি দেয়নি বলে পরিবারের দাবি।এপ্রসঙ্গে রাজগঞ্জের তৃণমূল বিধায়ক খগেশ্বর রায়ের  কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। এদিকে তৃণমূলের জলপাইগুড়ি জেলা সভাপতি কৃষ্ণকুমার কল্যাণী বলেন, ‘এটা তাঁদের পারিবারিক ব্যাপার। আমি এনিয়ে কোনও মন্তব্য করবো না’।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles