শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তিকে চ্যালেঞ্জ হাইকোর্টে

নিউজ ডেস্ক: ফের বাধার মুখে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পক্রিয়া। শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তিকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে মামলা দায়ের। চাকরী প্রার্থীদের হয়ে মামলা করলেন ফিরদৌস শামিম নামে এক আইনজীবী।

বুধবারই প্রকাশিত হয়েছিল ১৬ হাজারের কিছু বেশি পদে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি। বৃহস্পতিবার সেই বিজ্ঞপ্তিকে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেন আইনজীবী। আগামী ৪ জানুয়ারি বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের বেঞ্চে মামলার শুনানি।

মামলাকারী চাকরী প্রার্থীরা জানান, ২০১৪ সালের উত্তীর্ণ টেট পরীক্ষার্থীদের থেকে এই শূণ্যপদে নিয়োগ হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ওই বছর ৬টি প্রশ্ন ভুল এসেছিল। ভুল প্রশ্নে অনেকেই নম্বর না পাওয়ায় তারা পাস করতে পারেননি। এরপর ২০১৮ সালে বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় আবেদনকারী সমস্ত চাকরিপ্রার্থীর টেট পরীক্ষার খাতা পুনর্মূল্যায়নের নির্দেশ দেন। কিন্তু সেই মামলা নিষ্পত্তি হওয়ার আগেই কী করে রাজ্যের তরফে ফের প্রাথমিক শিক্ষা শিক্ষক নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হল? তা নিয়েই প্রশ্ন তুলেছেন ওই আইনজীবী।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে প্রাথমিকে শূণ্য পদে নিয়োগের কথা ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই মর্মে বুধবার জারি হয়েছিল বিজ্ঞপ্তিও। ১০ থেকে ১৭ জানুয়ারি পর্যন্ত ইন্টারভিউ চলবে বলেও জানিয়েছিলেন তিনি। পাশাপাশি ৩১ জানুয়ারি অফলাইনে তৃতীয় টেটের কথাও ঘোষণা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিনের মামলায় ফের কয়েক হাজার পরীক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ ঘিরে তৈরি হল ধোঁয়াশা।

 

 

 

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles