শুভেন্দু দল ছাড়ার পরদিনই তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন দাপুটে নেতার, বললেন ‘ভাইপো হটাও’

নিউজ ডেস্ক: দল ছেড়েছিলেন শুভেন্দুর ‘একনায়কতন্ত্র মনোভাব’কে মেনে নিতে না পেরে। এবার সেই মামুদ হোসেনের তৃণমূলে প্রত্যাবর্তন হল শুভেন্দু বিদায়ের পরদিনই। রবিবার তৃণমূল ভবনে পঞ্চয়েত মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূলে যোগ দিলেন মেদিনীপুেরর এককালের দাপুটে নেতা।

২০০৮ সাল থেকে ২০১৩ সাল পর্যন্ত পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের সহকারি সহ সভাধিপতি ছিলেন মামুদ হোসেন। নন্দীগ্রাম আন্দোলন, খেজুরি আন্দোলন থেকে শুরু করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের অনেক আন্দোলনের স্বাক্ষ্যবাহক। ২০১৩ থেকে ২০১৬ পর্যন্ত পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পরিষদের শিক্ষা কর্মাধ্যক্ষ ছিলেন। এদিন ফের তৃণমূলে যোগদানের পর তিনি বলেন, “শুভেন্দু অধিকারী একনায়কতন্ত্র চালাতেন। অন্য কারওর নেতৃত্ব তিনি মেনে নিতে পারতেন না। আমরা সবাই মিলে আন্দোলন করেছিলাম। পরবর্তীকালে দল ছাড়তে বাধ্য হয়েছিলাম।”

এখানেই থামেননি তিনি। বললেন, “শিশিরদাকে আমরা দাদা বলি। সেই অর্থে ও আমাদের ভাইপো। ও বলছেন ভাইপো হটাবার কথা, আমরা বলি ওকে হটাও।” শুভেন্দুকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, ”যিনি পঞ্চায়েত নির্বাচনে বলেছিলেন বিরোধী পক্ষকে সাফ করে দিলে ৫ কোটি টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করেন, যিনি নমিনেশনই ফাইল করতে দেননি, তিনি এখন গণতন্ত্রের কথা বলেছেন! যিনি মোদিকে হটানোর কথা বলেছিলেন, তিনি এখন অমিত শাহর পায়ে মাথা নত করছেন।”

শুভেন্দু বিজেপিতে। সঙ্গে প্রচর সংখ্যক অনুগামী। এতে অবশ্য তৃণমূলের কিছু যায় আসে না বলে আগে থেকেই দাবি করছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এখন একে একে অনেকেই মুখেই একই কথা শোনা যাচ্ছে। তবে একুশের নির্বাচনে কী হয়, সেদিকেই নজর রয়েছে সকলের।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles