‘কৃষক সুরক্ষা অভিযান’ কর্মসূচি, ‘মমতার বিদায়, বিজেপির জয় নিশ্চিত,’ বললেন নাড্ডা

নিউজ ডেস্ক : রাজ্য সফরে এসে বর্ধমানে ‘কৃষক সুরক্ষা অভিযান’ কর্মসূচি করলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। জনসভার পর রোড শো-ও করেন তিনি। এদিন দফায় দফায় তৃণমূলকে কটাক্ষ করেছেন নাড্ডা। মমতাকে নিশানা করে তিনি বলেন, ‘তৃণমূল ভয় পাচ্ছে। মমতাজি এত ভয় পাচ্ছেন কেন?’

এক মাস আগে রাজ্য সফরে এসেছিলেন নাড্ডা। সেই সময় ডায়মন্ড হারবারে তাঁর কনভয়ে হামলা চালানো হয়। সেই প্রসঙ্গে বিজেপির সর্ব ভারতীয় সভাপতি বলেন, ‘ডায়মন্ড হারবারে যা হয়েছে তা কি বাংলার সংস্কৃতি? মা মাটি মানুষের সরকার এখন চাল চোর, ত্রিপল চোরের সরকার। এটা কি বাংলার সংস্কৃতি।’

কৃষক আইনের প্রতিবাদে দিল্লিতে আন্দোলন চালাচ্ছেন কৃষকরা। জনসভা থেকে এদিন রাজ্যের কৃষকদের উদ্দেশে নাড্ডা বলেন, ‘কৃষক আইনে কৃষকদের সুবিধা দিতে চায় কেন্দ্র। বাংলায় জমির অভাব নেই, সেচেয় কাজ তেমনভাবে হয়না। রাজ্যের মানুষ পরিবর্তন চাইছে। বিজেপিকে চাইছে। দূর্গা মা-র নামে শপথ, কৃষকদের নিয়ে পরিবর্তন আনবে বিজেপি। রাজ্যে বিজেপি এলে আমরাই কেন্দ্রের কৃষক নিধি সম্মান চালু করব।’

মোদি সরকারের প্রশংসা করে নাড্ডা বলেন, ‘মোদিজি সবার বিকাশ করেন, কোনও তোষণের জায়গা নেই। কয়েক মাসের মধ্যে এখানে সব পাওয়া যাবে। কেন্দ্রের সব উন্নয়ন পৌঁছে যাবে বাংলায়।’ এ বছরই বিধানসভা নির্বাচন রাজ্যে। তার আগে বঙ্গ সফরে এসে আত্মবিশ্বাসের সুর শোনা গেল বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতির গলায়। জনসভা থেকে তিনি বলেন, ‘এখানে যাঁরা এসেছেন তাঁরা বিজেপির নয়, আমজনতার প্রতিনিধি। মানুষ না হলে এত জোশ দেখা যায় না। শুধু কর্মীরা থাকলে এত জোশ হয় না। আপনাদের উৎসাহ বলছে বাংলার জনতা তৃণমূল এবং মমতাকে বিদায়-নমস্কার করার জন্য প্রস্তুত আর পদ্মফুলকে স্বাগত জানাতে চায়।’

এদিন কাটোয়ার রাধাগোবিন্দ মন্দিরে পুজো দেন জে পি নাড্ডা। গিয়েছিলেন সর্বমঙ্গলার মন্দিরেও। বর্ধমানের বিখ্যাত সীতাভোগ মিহিদানা দিয়ে পুজো দেন তিনি।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles