প্রাক্তনীর প্রত্যাবর্তন! ‘তৃণমূলই আসবে ক্ষমতায়’, চ্যালেঞ্জ মদনের

নিউজ ডেস্ক: ঠিক যেন প্রাক্তনীর প্রত্যাবর্তন! ঠিক সেই মেজাজেই এবার শুভেন্দু অধিকারীকে এক হাত নিলেন মদন মিত্র। উত্তর ২৪ পরগনার বারাকপুরে সপ্তাহের প্রথমে সভা করে গিয়েছিলেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। আর তার পালটায় রবিবার দুপুরে খড়দহ এলাকায় বড়সড় মিছিলের পর সভা করলেন এলাকার দাপুটে তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। সেখান থেকেই শুভেন্দুর নাম করে হুঙ্কার ছাড়লেন তিনি।

বারাকপুরের সভায় মদন মিত্র বললেন, ‘চমকে-ধমকে লাভ নেই। ফের তৃণমূলই ক্ষমতায় আসবে। সেদিন শুভেন্দু, তুমি বাড়িতে বসে থেকো।’ পাশাপাশি এও স্পষ্ট করে দিলেন, তৃণমূল এবং তাঁর সম্পর্কে কোনও অবনতি হয়নি। বললেন, ‘কেউ যদি বলে থাকেন যে আমাকে দল বের করে দিয়েছে, ভুল বলছেন। বের করে দেয়নি। বরং যা দিয়েছে, তা আমি কোনওদিন ভুলতে পারব না।’ আগেই শুভেন্দুকে ‘বেইমান’-এর তকমা দিয়েছে তৃণমূল। এদিন একই সুর ধরে এবার মদন মিত্রও বিঁধলেন তাঁকে। খড়দহের জনসভা থেকে তাঁর বক্তব্য, ‘লড়াই করতে গিয়ে যদি লাশ বের হয়, তাহলে একটাই অনুরোধ। লাশের উপর লিখে দেবেন – এটা বেইমানের লাশ নয়, এটা ইমানদারের লাশ।’

তৃণমূল ক্ষমতায় আসার পর পরিবহণ মন্ত্রী করা হয়েছিল মদন মিত্রকে। কিন্তু পরে চিটফান্ড কাণ্ডে নাম জড়ালে রাজনৈতিক ময়দানে তাঁকে কম দেখা যাচ্ছিল। কিন্তু শুভেন্দু অধিকারী পরিবহণ মন্ত্রীর পদ ত্যাগ করে বিজেপিতে যোগদানের পর ফের মদন মিত্রকেই পরিবহণ দফতরের বিশেষ কমিটির চেয়ারম্যান করা হয়েছে। আসন্ন বিধানসভা ভোটে তৃণমূল ফের ক্ষমতায় এলে ফের নিজের জায়গাতেও ফিরতে পারেন মদন মিত্র। তেমনটাই খবর রয়েছে তৃণমূলের অন্দরে। এখন দেখার একুশের ভোটে শেষ হাসি কে হাসেন?

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles