Html code here! Replace this with any non empty raw html code and that's it.

এগরা ও তাম্রলিপ্ত পুরসভার দুই প্রশাসককে অপসারণ পুর ও নগরোন্নয়ন দফতরের

নিউজ ডেস্ক: চেয়ারম্যান পদ থেকে শিশির অধিকারীকে অপসারিত করার পর এগরা ও তাম্রলিপ্ত পুরসভার দুই প্রশাসককেও সরিয়ে দিল পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর। মঙ্গলবার সকালেই দিঘা-শঙ্করপুর উন্নয়ন পর্ষদের চেয়ারম্যান পদ থেকে শিশির অধিকারীকে অপসারিত করেছে নবান্ন। তাঁর বদলে নতুন চেয়ারম্যান করা হয়েছে অখিল গিরিকে। এবার এগরা ও তাম্রলিপ্ত পুরসভার দুই প্রশাসক শঙ্কর বেরা ও রবীন্দ্রনাথ সেনকেও সরিয়ে দিয়েছে পুর ও নগরোন্নয়ন দফতর। তাঁরা দু’জনেই অধিকারী পরিবারের ঘনিষ্ঠ বলে পরিচিত। এগরা পুরসভার নতুন প্রশাসক করা হয়েছে স্বপন নায়েক ও তাম্রলিপ্ত পুরসভার নতুন প্রশাসক করা হয়েছে দীপেন্দ্রনারায়ণ রায়কে। এদিকে গিরি পরিবারের গুরুত্ব বাড়ছে মেদিনীপুরে। অখিল গিরির সঙ্গে তাঁর পুত্র সুপ্রকাশকেও কাঁথি পুর প্রশাসক বোর্ডের সদস্য করা হয়েছে।

এদিন শিশির অধিকারীকে অপসারণ প্রসঙ্গে অখিল গিরি অভিযোগ করে বলেন, ‘পর্ষদের কোনও কাজ করতেন না শিশির অধিকারী। এমনকী কখনও কোনও বৈঠকও ডাকেননি তিনি’। পাশপাশি শুভেন্দুর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সঙ্গে যে এই অপসারণের কোনও যোগ নেই তাও তিনি পরিস্কার করে জানিয়ে দেন।
শিশির অধিকারীকে এই বিশেষ পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার প্রসঙ্গে এদিন পুর ও নগরোন্নয়মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘‌ছেলের কাজে লজ্জিত শিশিরদা। অসুস্থ ছিলেন, তাই অব্যাহতি চেয়েছেন।’‌ শিশির অধিকারীর অপসারণ প্রসঙ্গে এদিন পঞ্চায়েতমন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘‌দীর্ঘদিন কোনও পদে থাকলে তো রদবদল হয়। এটা তো সংসদীয় গণতন্ত্রের এক প্রথা। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের মন্ত্রিসভায় আমারও অনেকবার দফতর বদল হয়েছে। তাতে তো আমি কখনও অপমানিত বোধ করিনি। আর অখিল গিরি তো আমেরিকার নয়!‌’‌

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles