‘কাঁথি কোনও পরিবারের জমিদারি নয়’, শুভেন্দু গড়ে দাঁড়িয়ে তোপ সৌগতর

নিউজ ডেস্ক : শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূল ছাড়ার পর প্রথম কাঁথিতে সভা করল শাসক দল। বুধবার সভায় উপস্থিত ছিলেন ফিরহাদ হাকিম এবং সৌগত রায়। একটি মিছিলও করেন তাঁরা। কোথাও দেখা যায়নি অধিকারী পরিবারের কোনও সদস্যকে। এদিনের সভা থেকে অমিত শাহ কটাক্ষ করে সৌগত রায় বলেন, “মোটা ভাই অমিত শাহ হনুমানের মতো লাফিয়ে বারবার বাংলায় আসছেন। বলছেন ২০০ আসন পাবেন। অমিত শাহ কী নেশা করেন জানি না। যে জন্য এরকম দিবাস্বপ্ন তিনি দেখছেন। বিজেপির কর্মীরা হনুমানের মত লাফিয়ে লাফিয়ে চললেও কোনও পার্থক্য হবে না।” শুভেন্দুকে কটাক্ষ করে তিনি বলেন, “নন্দীগ্রামের আন্দোলন স্থানীয়রা করেছেন। কোনও সরস্বতীর বরপুত্র সুন্দর চেহারা নিয়ে এসে করেননি। অনেক লোক মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চ্যালেঞ্জ করছে। হাওয়াই চটি, নীল পাড় সাদা শাড়ি পরা কেউ রাজ্য চালাবেন তা মানতে পারছেন না দিল্লির কেউ। তাই অপপ্রচার।”

প্রসঙ্গ, তৃণমূল ছাড়ার আগে শুভেন্দুর ক্ষোভ নিরসনের জন্য মধ্যস্থতার দায়িত্বে ছিলেন সাংসদ সৌগত রায়। তিনি শুভেন্দুর সঙ্গে একাধিকবার বৈঠক করেছিলেন। তাঁর মধ্যস্থতাতেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রশান্ত কিশোর শুভেন্দুর সঙ্গে বৈঠকে বসেন। সৌগত রায় দাবি করেছিলেন, শুভেন্দু তৃণমূলেই থাকবেন। কিন্তু, শুভেন্দু পরিষ্কার জানিয়ে দেন একসঙ্গে কাজ করা মুশকিল। শুভেন্দুর দলবদলের পর এদিন তাঁর গড়ে গিয়ে প্রাক্তন সহযোদ্ধাকে আক্রমণ শানান সৌগত রায়।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles