নন্দীগ্রাম নিয়ে মমতাকে কটাক্ষ শুভেন্দুর, কর্মসূচি ঘোষণা করে ‘পগাড়-পার’

নিউজ ডেস্ক: নাম না করে নন্দীগ্রাম নিয়ে মমতাকে খোঁচা শুভেন্দুর। রীতিমতো ব্যঙ্গ করেই তিনি বলেন, ‘অনেকে তো রাজনৈতিক কর্মসূচি ঘোষণা করেও পগার পার’। বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পরই প্রথমবার নন্দীগ্রামে একটি ধর্মীয় অনুষ্ঠানে যোগ দিতে এসে তিনি নিজের পুরনো দলকে আক্রমণ করেন।

মেদিনীপুরের কলেজ মাঠে শুভেন্দুর যোগ দেওয়ার পরই, তৃণমূল জানিয়ে দেয় শুভেন্দুর গড়েই জনসভা করবেন মমতা। সেইমতো ৭ জানুয়ারি দিনও ঘোষণা হয়ে যায়। কিন্তু, এক মাস আগে থেকেই ঠিক করা ছিল সেখানে সভা করবেন সদ্য বিজেপিতে যোগ দেওয়া শুভেন্দু অধিকারী। পরে দিদির সভার কথা শুনে ৮ জানুয়ারি সভা করবেন বলে ঠিক করেন তিনি। পাশাপাশি তিনি তৃণমূল সুপ্রিমোকে কটাক্ষ করে বলেন, ‘তিনি পুলিশ দিয়ে ত্রিশ হাজার লোক আনবেন, আর আমি ভালোবাসা দিয়ে এক লক্ষেরও বেশি মানুষের জমায়েত করব’। কিন্তু এত কিছুর পরে শোনা যায় তৃণমূল নন্দীগ্রামের সভা বাতিল করেছে। কারণ হিসাবে তারা জানান রামনগরের বিধায়কের করোনা ধরা পড়েছে আর তিনিই ছিলেন সেদিনের সভার প্রধান উদ্যোক্তা। সেই কারণে সভা বাতিল করা হয়েছে। এই নিয়ে শুরু হয় জোর জল্পনা-কল্পনা।

মঙ্গলবার ধর্মীয় অনুষ্ঠানের মঞ্চ থেকে তিনি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উন্নয়নের কথা বলেন। তাঁর ব্যক্তিগত উদ্যোগে তিনি যে হলদিয়ায় বিভিন্ন শিল্পসংস্থার সিএসআর তহবিলে দান করেছেন তাও তিনি বুঝিয়ে দিয়েছেন কথায় কথায়। এমনকী নন্দীগ্রামের ভাইবোনেরা তাঁর সঙ্গেই আছেন বলেও জানিয়েছেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী।

Related Articles

- Advertisement -

Latest Articles